মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলার ঐতিহ্য

কালের বিবর্তন, পদ্মার ভাঙ্গন আর প্রশাসনিক বিকেন্দ্রীকরণে সূদুর প্রাচীন ইতিহাসের পথ পরিক্রমা পেরিয়ে ঐতিহ্যবাহী বিক্রমপুরের পরিণতি আজকের মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার অস্তিত্ব। তাই এটা সুদূর প্রাচীন সভ্যতার সূতিকাগার।

 

গ্রামীন ঐতিহ্য

 

গ্রাম বাংলার অন্যতম ঐতিহ্য হচ্ছে পালকি। এক সময় মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় পালকির ব্যপক ব্যবহার ছিল। খানদানি বাড়ির লোকজন পালকিতে করে যাতায়াত করত। বৌ-দের নায়র (আনা-নেওয়া করা) করার জন্য পালকি ছিল অন্যতম মাধ্যম। বেহারাদের সুর করে সেই কিনু (বেহারাদের সঙ্গিত) মন কেরে নিত। গোয়ালার গলি ঘুরে মাঠ প্রান্তর পেরিয়ে গন্তব্যের কাছে দূর থেকে সেই কিনু মন মিাতিয়ে তুলত। বর্তমানে চিরায়ত গ্রামবাংলার ঐতিহ্যের ধারক পালকি আর চোখে পড়ছে না। হারিয়ে যাচ্ছে পালকি । পালকিও কোন কোন খানদানি বাড়িতে অচল হয়ে পড়ে আছে। কিংবা মিউজিয়াম পিস হয়ে কালের স্থানীয় সাক্ষী হয়ে আছে জাদুঘরে।

 

গ্রাম বাংলার এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকা তাল গাছ, কিচিরমিচির শব্দে মুখরিত করে তোলা বাবুই পাখির আবাসস্থল তাল গাছ।  সূয্যি মামা জাগার সাথে সাথে খেজুর রস বিক্রেতাদের দেখা পাওয়া যায়। গৃহস্থরা তাল ও খেজুরের রস বিক্রি করে অথবা গুড় তৈরী করে বাজারে বিক্রয় করে। তাল ও খেজুর গাছের ডালে বাবুই পাখির বাসার দেখা।

 

গ্রাম বাংলার আরো একটি অন্যতম ঐতিহ্য হচ্ছে গ্রামাঞ্চলের ঢেঁকিমুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় প্রায় প্রতিটি ঘরেই ঘরের বউ-ঝিয়েরা ঢেঁকিছাঁটা চাল দিয়ে ভাত রান্না করত। কিন্তু প্রযুক্তির ব্যপক প্রসারের ফলে এখন আর তেমন ভাবে ঢেঁকির ব্যবহার চোখে পড়ে না। ভাতের সেই অতীত স্বাদ থেকে জনপদের লোকজন বর্তমানে অনেকটাই বঞ্চিত। ধান মাড়াই করে চাল বের করার জন্য যন্ত্রদানব ব্যবহার করা হচ্ছে। বিজ্ঞান প্রযুক্তির যুগের উদ্ভাবনই ঢেঁকির ব্যবহার দিন দিন কমে আসেছে...

 

গ্রাম বাংলার আরো একটি অন্যতম ঐতিহ্য হচ্ছে যাঁতামুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় প্রায় প্রতিটি ঘরেই এক সময় যাঁতা ছিল। এক সময় এ শিল্পটি গ্রামীণ মানুষের ধান, গম, ডাল ইত্যাদি ভানতে একমাত্র মাধ্যম ছিল। প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে প্রায় প্রতিটি বাড়িতে ছিল এই ঢেঁকি আর যাঁতার ব্যবহার ছিল। গ্রামীণ নারীরা সংসারের বিভিন্ন কাজকর্ম করার পর কিংবা সকালে এটি ব্যপক ব্যবহার করত। কিন্তু প্রযুক্তির ব্যপক প্রসারের ফলে এখন আর যাঁতার ব্যবহার চোখে পড়ে না। বর্তমানে এই যাঁতা বা যাঁতাশিল্প আজ একেবারেই বিলুপ্তির পথে।

 

হারিয়ে যাচ্ছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য গরু দিয়ে ধান মাড়াই. ॥  রূপ, রং আর ঋতু বৈচিত্রের দেশ বাংলাদেশ। শষ্যের শ্যামলতা ভাটিয়ালী সুরের গান, রাখালের বাশিঁ, কৃষাণের উদার জমিন, কৃষাণীর ধান ভানার উল্লাস, ছয় রূপের ছয়টি ঋতু সব মিলিয়ে এ যেন কোন শিল্পীর নিপুণ হাতে রং তুলিতে আঁকা স্বপ্নের দেশ।

 

দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা-লম্ব কোনো গভীর জীবনসত্য লোকপ্রিয় কোনো সংক্ষিপ্ত উক্তির মধ্যে সংহত হয়ে প্রকাশিত হলে তাকে প্রবাদ বলা হয়। বাংলায় প্রবাদ ও প্রবচন প্রায় সমার্থক শব্দ হলেও এ দুয়ের মধ্যে সূক্ষ্ম পার্থক্য লক্ষ করা যায়। প্রবাদ অজ্ঞাত পরিচয় সাধারন মানুষের লোক পরম্পরাগত সৃষ্টি। কবি, সাহিত্যিক ও চিন্তাশীল বিজ্ঞজনই প্রবচনের ...